প্রচ্ছদ আইন-আদালত

খালেদার জামিন বহাল, বিএনপির সান্ত্বনা পুরস্কার

18
খালেদার জামিন বহাল, বিএনপির সান্ত্বনা পুরস্কার

খুলনা নির্বাচনে হারল বিএনপি। গতকাল মঙ্গলবার রাতের বিএনপির এর ক্ষতে রাত পেরোতেই প্রলেপ পড়েছে।

সকাল ৯ টার মধ্যেই জিয়া অরফানেজ দুর্নীতি মামলায় কারান্তরীণ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম জিয়ার হাইকোর্টে দেওয়া জামিন বহাল রাখার আদেশ দিয়েছে আপিল বিভাগ।

খালেদা জিয়া মুক্তি না পেলেও তাঁর দীর্ঘ প্রত্যাশিত এই জামিন আপিল বিভাগে বহাল থাকায় এককথায় গতকালের ক্ষতে ভালোই প্রলেপ পড়েছে। গতকালও মুখে তুবড়ি ছোটানো বিএনপি কয়েকজন নেতার চোখে মুখে আজ দেখা গেছে আত্মতৃপ্তি আর খুশির আভা। খুলনা নিয়ে কথা বলার সময় ও মন দুটোই নেই কারও।

অবশ্য রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, খুলনায় পরাজয়ের স্বাদ নেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই বেগম জিয়ার জামিন আপিল বিভাগে বহাল থাকা গুরুত্ববহ হলেও, এই মুহূর্তে তা বিএনপির জন্য সান্ত্বনা পুরস্কার বই বাড়তি কিছু নয়। সান্ত্বনা পুরস্কার যেমন মূল পুরস্কারের মতো গুরুত্ব বহন করে না শুধু সান্ত্বনাই দেয়।

তেমনি বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আপিল বিভাগে বহাল থাকা। জামিন বহাল থাকলেও অন্যান্য মামলার কারণে কারাগারেই থাকতে হবে বেগম জিয়াকে। শিগগিরই কারামুক্তি মিলছে না। এরপরও সান্ত্বনার পুরস্কার পেয়ে গতকালের পরাজয়ের ক্ষোভ প্রকাশের আগেই মুখে কুলুপ পড়ল বিএনপির।

খুলনা নিয়ে যে বিএনপি তাঁতিয়ে উঠবে, ভজঘট বাঁধাবে, আন্দোলনের হুমকি দেবে সেই রাস্তাও এক অর্থে বন্ধ হয়ে গেল। কিছু একটা পেয়ে আপাতত খুশি মনেই মুখ বন্ধ রাখছে বিএনপি। এই অর্জনের তৃপ্তিতেই কয়েকদিন ঢেকুর উঠবে দলটির।

বিশ্লেষকদের মতে, খুলনা নিয়ে এরই মধ্যে বিএনপি একটি যুদ্ধদেহী মনোভাব নিয়ে দাঁড়িয়ে যেত, একটা কর্মসূচি দিত বিএনপি। কিন্তু সকালে এমন কোনো কর্মসূচির আগেই বিএনপিকে আত্মতৃপ্তিতে ভাসিয়ে দিয়েছে বেগম জিয়ার জামিন বহালের আদেশ। এখন আত্মতৃপ্তির ঢেকুর তুললেই ব্যস্ত বিএনপি নেতৃবৃন্দ।

গতকালের হার এখন তাদের কাছে দূর ইতিহাস। গতকাল দিনভর দেখা নজরুল ইসলাম মঞ্জুর হতাশ মুখ আজই বিস্মৃত বিএনপির কাছেই।

খালেদার মুক্তিতে অন্যান্য মামলা আর বাধা হবে না: মওদুদ

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার হাইকোর্টের জামিন আপিল বিভাগ বহাল রাখায় নিম্ন আদালতে অন্যান্য মামলায় মুক্তি পেতে আর বাধা হবে না। আইনী পথে তিনি মুক্তি পেয়ে আমাদের মাঝে ফিরে আসবেন।

আপিল বিভাগের রায়ের পর বুধবার খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ এ কথা জানান।

তিনি বলেন, কুমিল্লা, নড়াইল ও ঢাকায় থাকা মামলায় জামিন নেয়ার পরই তিনি জামিনে মুক্তি পাবেন।

আজ খালেদার জামিন বাতিলে রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদকের করা আপিল খারিজ করে দিয়ে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ জামিন বহাল রাখেন। একই সাথে নিম্ন আদালতের সাজার বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার যে আপিল করেছেন সে আপিল বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এ রায়ের পর খালেদা জিয়ার মুক্তিতে বাধা আছে কিনা- এমন প্রশ্নে খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, কিছুটা বাধা আছে। কুমিল্লা, নড়াইল ও ঢাকায় যে মামলাগুলো আছে, সেগুলোতে জামিন নিতে হবে। এখন আমরা দ্রুত চেষ্টা করবো আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার। তিনি শিগগিরই আমাদের মাঝে মুক্ত হয়ে আসবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন মওদুদ।

আরেক আইনজীবী অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেন, সরকার তো সব সময় বাধা দেয়। এখন তার বিরুদ্ধে অন্য যেসব মামলা আছে সেগুলোতে দ্রুত হাইকোর্ট থেকে জামিন নেয়ার চেষ্টা করবো। আইনি প্রক্রিয়ায় সব বাধা দূর করা হবে।

শেয়ার

আপনার মন্তব্য করুন

Loading Facebook Comments ...